সাংবাদিকতায় আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন: ০১৭১১৫৭৬৬০৩
সর্বশেষ সংবাদ
  • সকাল ১১:৫৮ | ১৮ই জানুয়ারি, ২০২০ ইং , ৫ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ , ২৩শে জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরী

আখাউড়ায় ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে পরীক্ষা কেন্দ্রে কোরবানীর পশুর হাট

এইচ.এম. সিরাজ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় শহীদ স্মৃতি সরকারী কলেজ মাঠে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে কোরবানীর পশুর হাট বসেছে। মঙ্গলবার ডিগ্রী পরীক্ষার ব্যবস্থাপনা ৪র্থ পত্রের পরীক্ষা ছিলো।  হাজার হাজার ক্রেতা-বিক্রেতার উপস্থিতিতে সরগরম হয়ে উঠে কলেজ মাঠ।  আখাউড়া পৌর পশুর হাট ইজারাদার আলাউল করিম পশুর হাট বসিয়েছেন।  ঈদের আগের দিন পর্যন্ত হাট চলবে। তবে কলেজের একাধিক শিক্ষক কলেজ মাঠে পশুর হাট বসায় অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।
আজ বেলা আড়াইটার দিকে সরেজমিনে শহীদ স্মৃতি সরকারী কলেজ মাঠে গিয়ে দেখা যায়, কলেজের তৃতীয় তলার একটি কক্ষে চারজন শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছেন।  কলেজ মাঠে শত শত গরু-মহিষ, ছাগল নিয়ে এসেছেন বিক্রেতারা।  হাজার হাজার ক্রেতা-বিক্রেতার উপস্থিতি সরগরম কলেজ মাঠ। কিছু ক্রেতা-দর্শনার্থীকে কলেজের বাড়ান্দায় বসে বিশ্রাম নিতেও দেখা যায়।  নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন শিক্ষক বলেন, কলেজের অধ্যক্ষের অাপত্তি সত্বেও সংশ্লিষ্ট প্রশাসন কলেজ মাঠে পশুর হাটের অনুমতি দিয়েছেন। এ কারণে মাঠের সৌন্দর্য যেমন নষ্ট হচ্ছে, তেমনি পশুর বর্জ্যে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। আখাউড়া শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. জয়নাল আবেদীন বলেন, ‘কলেজ গর্ভনিং বডির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিনা আক্তার রেইনা পশুর হাটের অনুমতি দিয়েছেন। এ ব্যপারে আমার কিছু করার নেই। ‘ হাটের ইজারাদার আলাউল করিম বলেন, ‘ইউএনও’র অনুমতি নিয়েই কলেজ মাঠে পশুর হাট বসিয়েছি। তাছাড়া বিষয়টি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিও অবগত আছেন।’
আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিনা আক্তার রেইনা বলেন, ‘কলেজ মাঠে আলাদা বেষ্টনি দিয়ে চৌহদ্দি নির্ধারণ করে পশুর হাট বসানো হবে। তাছাড়া আজকের (গতকাল মঙ্গলবার) পরীক্ষায় মাত্র চারজন পরীক্ষার্থী। পশুর হাটের জন্য পরীক্ষার্থীর কোনো অসুুুবিধা হবার কথা নয়।’
Play
Play
previous arrow
next arrow
Slider

ফেসবুকে আমাদের সাথে থাকুন

তথ্য-প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা স্বাধীন সাংবাদিকতার পথে একটি বড় বাধা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছিল। এই ধারার কারণে বহু সাংবাদিককে হয়রানির শিকার হতে হয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে অনেক মামলা হয়েছে। অনেককে কারাগারেও যেতে...

    ১৭ই মার্চ, ১৯২০ সালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শেখ লুৎফুর রহমান এবং সায়রা বেগমের ঘরে জন্ম নেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ছয় ভাইবোনের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়। গোপালগঞ্জ...

previous arrow
next arrow
ArrowArrow
Slider

  অত্যন্ত মিষ্টিভাষী ও উদারমনা সমাজসেবী মোঃ মাহবুব হাসান টুটুল। পিতা-(মৃত তোজাম্মেল হোসেন) টাংগাইল জেলার গোপালপুর থানার হেমনগর শিমলাপাড়া গ্রামে ১৯৮৩ সালে এই অনন্য ব্যক্তিত্বের অধিকারী জন্মগ্রহণ করেন। তিনি দুইবার...

Archives

Feb0 Posts
Mar0 Posts
Apr0 Posts
May0 Posts
Jun0 Posts
Jul0 Posts
Aug0 Posts
Sep0 Posts
Oct0 Posts
Nov0 Posts
Dec0 Posts
Jan0 Posts
Feb0 Posts
Mar0 Posts
Apr0 Posts
May0 Posts
Jun0 Posts
Jul0 Posts
Aug0 Posts
Nov0 Posts
L0go

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি