শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:০৭ পূর্বাহ্ন

দেশের বিভিন্ন জায়গায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭১১৫৭৬৬০৩
সংবাদ শিরোনামঃ
দুটি আর্ন্তজাতিক স্বীকৃতি পেলেন প্রথম সারির করোনা যুদ্ধা জহিরুল হক বিল্লাল আর্ন্তজাতিক স্বীকৃতি পেলেন এড. মো: আয়ুবুর রহমান ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মাদকসহ আটজন গ্রেপ্তার কর্মকর্তার অবহেলায় গৃহহীনরা পায়নি প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর!  বর্ষাকালে ত্বকের সুস্থতার জন্য প্রয়োজনীয় পরামর্শ গুরুদাসপুরে পীরপাল মাজার শরীফের অর্থআত্মসাত ও গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ সাবেক খাদেমের বিরুদ্ধে নাসিরনগরে ” বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি” পালিত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসামীর ছুরিকাঘাতে দারোগা নিহত কেবল মাইকেই স্বাস্থ্যবিধির প্রচারণা, বাস্তবে উল্টো চিত্র! ভ্রুণ হত্যাকারী প্লাবনের গ্রেপ্তার দাবীতে নাসিরনগরে মানববন্ধন
করোনার উপসর্গ নিয়ে বিটিভি’র কর্মীর মৃত্যু

করোনার উপসর্গ নিয়ে বিটিভি’র কর্মীর মৃত্যু

এইচ.এম. সিরাজ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনার উপসর্গ নিয়ে বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি)’র কর্মী আবু বকর সিদ্দিকের (৫১) মৃত্যু হয়েছে। তাকে যথাযথ নিয়মে দাফনের পর নিজ গ্রামের চারটি বাড়িকে লকডাউন করেছে প্রশাসন।
শুক্রবার (৫ জুন) সকালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের বিরামপুর (ছোট শাহপুর) গ্রামে নিজ বাড়িতে করোনার উপসর্গ নিয় মারা যান আবু বকর সিদ্দিক। দুপুরে যথাযথ নিয়মে পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়। তিনি ছোট শাহপুর গ্রামের মৃত আবদুল মোত্তালিবের পুত্র এবং বাংলাদেশ টেলিভিশন রামপুরা কেন্দ্রের ক্যামেরাম্যান সহকারি হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আবুবকর সিদ্দিক বাংলাদেশ টেলিভিশন রামপুরা কেন্দ্রে ক্যামেরাম্যান সহকারি পদে কর্মরত ছিলেন। গত এক সপ্তাহ আগে তিনি জ্বর-সর্দিতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন। কিছুটা আরোগ্যের পর তিনি গত বুধবার নিজ বাড়িতে চলে আসেন আবুবকর সিদ্দিকের ভাতিজা সাইফুর রহমান বিজয় জানান, বাড়ি ফেরার পর ঠাণ্ডাজনিত জ্বরের পাশাপাশি কাশি ও শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাবার পর বৃহস্পতিবার সকালে জেলা সদরস্থ কমফোর্ট হাসপাতালে নেয়ার পর তিনি ফুসফুসে সমস্যা এবং যক্ষ্মায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে চিকিৎসক জানান। পরে সেখান থেকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। শুক্রবার সকাল আটটায় অবস্থার অবনতি হয়ে নিজ বাড়িতেই তিনি মারা যান। এদিকে করোনার উপসর্গ নিয়ে আবুবকর সিদ্দিক মারা যাবার বিষয়টি স্থানীয় লোকজন প্রশাসনকে অবহিত করলে সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এবং সদর উপজেলা প্রশাসনের লোকজন গিয়ে আলামত সংগ্রহের পর দুপুরে আইইডিসিআর’র নিয়ম মোতাবেক জানাজা শেষে তাকে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হয়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পঙ্কজ বড়ুয়া বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘বিশেষ ব্যবস্থায় লাশ দাফনের পর ওই নিহতের পরিবারসহ চারটি পরিবারকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।’

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Design: About IT
x Close

ফেসবুকে আমাদের সাথে থাকুন

Shares
CrestaProject