শুক্রবার, ০৩ Jul ২০২০, ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন

দেশের বিভিন্ন জায়গায় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭১১৫৭৬৬০৩
সংবাদ শিরোনামঃ
ভ্রুণ হত্যাকারী প্লাবনের গ্রেপ্তার দাবীতে নাসিরনগরে মানববন্ধন লক্ষ্মীপুর জেলা বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন সভাপতি মিজানুর রহমান অসুস্থ, দোয়াপ্রার্থী পাপ ছাড়েনা বাপকেও! পুলিশের পোশাকের আড়ালে এসআই রকিবের ইয়াবার রমরমা ব্যবসা অবশেষে ১৮ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার জহিরুল হক বিল্লাল ‘করোনাযোদ্ধা’র আন্তর্জাতিক সার্টিফিকেট প্রাপ্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনাভাইরাস পিসিআর ল্যাব স্থাপন আকাবির চিন্তার ধারক ছিলেন মুফতী কেফায়েতুল্লাহ বিন নূর আখাউড়ায় উদ্ধারের তিন মাস পর স্বাধীনতাকালের মর্টারশেল নিস্ক্রিয় জাতীয়  গ্রিড লাইনে ত্রুটি, ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ সাত জেলা বিদ্যুৎহীন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাওলানা কেফায়েত উল্লাহ্’র ইন্তেকাল অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক কর্মকর্তা আবু সাঈদ ডায়াবেটিসের রোগী
জহিরুল হক বিল্লাল ‘করোনাযোদ্ধা’র আন্তর্জাতিক সার্টিফিকেট প্রাপ্ত

জহিরুল হক বিল্লাল ‘করোনাযোদ্ধা’র আন্তর্জাতিক সার্টিফিকেট প্রাপ্ত

সুমাইয়া লিজা: করোনা কালে বিশেষ অবদান রাখায় অনলাইন জরিপে করোনার পুরুষ্কার এ তালিকায় নাম আসে ও সংগঠন কর্তৃক ‘করোনাযোদ্ধা’র আন্তর্জাতিক সার্টিফিকেট প্রাপ্ত হন জহিরুল হক বিল্লাল।নেপাল বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ এসোসিয়েশন সরকারী ত্রাণের সুস্ঠ বন্টন, ব্যাক্তি উদ্যোগে অর্থ দান, সামাজিক সচেতনতা ও মাঠ পর্যায়ে কাজ করার জন্য এই বিশেষ সার্টিফিকেট প্রদানে তাকে মনোনীত করেন।বিষয়টি সংগঠনের বাংলাদেশ আহবায়ক ইমদাদুল হক তৈয়ব মানজীবন 24. কমকে নিশ্চিত করেছেন এবং অতি শ্রীগ্রই প্রতিনিধির মাধ্যমে এই সার্টিফিকেট পৌছে দিবেন বলে জানান তিনি।নেপাল সরকার অনুমোদিত সংগঠন নেপাল-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ এসোসিয়েশন অনলাইন জরিপের মাধ্যমে নেপাল ও বাংলাদেশের ‘করোনাযোদ্ধা’র আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি ইতোমধ্যেই অনেকেই পেয়েছেন।সংগঠনের এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

 

মেম্বার, চেয়ারম্যান ও গুটি কয়েক জনপ্রতিনিধিদের অসৎ কাজের জন্য গোটা সমাজটাকে অসস্থিকর অবস্থায় ফেলে দিয়েছিল। এই সার্টিফিকেট যারা ভালো কাজ করেছে নিঃসন্দেহে তাদের মুখ উজ্জল করবে।

ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা হবির বাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের ১নং প্যানেল চেয়ারম্যান জহিরুল হক বিল্লাল। ছোট বেলা থেকেই সমাজের পরিবর্তন, উন্নয়ন এবং মিলে মিশে থাকার চিন্তা ভাবনা করতেন।

 

জহিরুল হক বিল্লাল ছাত্র জীবন থেকেই আওয়ামীলীগের রাজনীতির সঙ্গে সমপৃক্ত ছিলেন। ১৯৯১ সালের যুবলিগের ওয়ার্ড কমিটির সাধারন সমপাদক ও ২০০১ সালে ইউনিয়ন কমিটি এবং ২০১৫ সাল থেকে ভালুকা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সুনামের সঙ্গে দলের কাজ করছেন। তার সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দ্বায়িত্ব পালনের পুরুস্কার হিসাবে ২০১৮ নবগঠিত ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটিতে দ্বায়িত্ব পান। দেশের কল্যানে নিষ্ঠার সঙ্গে প্রতিটি সেক্টরে তার স্বতস্ফুর্ত দ্বায়িত্ব পালনে সবসময় তাকে পাওয়া যায়।

 

স্কুলজীবন থেকেই ক্রিয়া ও সংস্কৃতিমনা হিসাবে এলাকার সাধারন মানুষের প্রিয় মুখ জনগনের মতামত নিয়ে ২০১০ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে অংশ নিয়ে ব্যপক ভোটের ব্যবধানে জয় লাভ করেন। সৎ ও নির্ভীক মনোভাব দীর্ঘ পথ চলায় তার জনপ্রিয়তায় এতটুকু কমতি পড়েনি। যার প্রমান ২য় দফায় ২০১৬ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশনিয়েও বিপুল ব্যবধানে জয় লাভ করেন। দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবন ও দুই দফায় ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার হিসাবে সততা, আন্তরিকতা, দক্ষতা ও গুরুত্বের সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। সমাজের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ, পরোপকার ও মানুষের কল্যাণে সদা প্রস্তুত থাকেন এবং করে যাচ্ছেন তিনি।

শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Design: About IT
x Close

ফেসবুকে আমাদের সাথে থাকুন

Shares
CrestaProject