সাংবাদিকতায় আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন: ০১৭১১৫৭৬৬০৩
  • সকাল ১১:২৪ | ২৮শে মে, ২০২০ ইং , ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ , ৫ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

প্যারোলে নয় বরং খালেদা জিয়ার পূর্ণাঙ্গ মুক্তি দাবি

শনিবার (৬ এপ্রিল) জামালপুরে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ‘খালেদা জিয়া প্যারোলে মুক্তির আবেদন করলে বিষয়টি বিবেচনা করবে সরকার’। এরপরই খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি আলোচনায় আসে। রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে, সরকার ও বিএনপির বোঝাপাড়ার ভিত্তিতে প্যারোলে মুক্তি পেতে যাচ্ছেন খালেদা জিয়া।

শর্ত সাপেক্ষে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে প্যারোলে মুক্তি দিতে পারে সরকার। যদি দলটির পক্ষ থেকে প্যারোলে মুক্তি চেয়ে আবেদন করা হয় কিংবা খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় নিয়োজিত মেডিক্যাল বোর্ড মুক্তির সুপারিশ করে, সরকার তা বিবেচনা করবে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বিশ্বস্ত একটি সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।  যদিও আওয়ামী লীগ নেতারা জানিয়েছেন, খালেদা জিয়া দণ্ডিত আসামি। তাকে রাজনৈতিকভাবে মুক্তি দেওয়ার সুযোগ নেই। একজন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি শুধু তখনই প্যারোলে মুক্তি পেতে পারেন, যখন তার কোনও নিকট আত্মীয়-স্বজন মারা যান, কিংবা তিনি নিজে অসুস্থ হন।

এই প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে রাজনৈতিকভাবে প্যারোলে মুক্তি দেওয়ার কোনও সুযোগ নেই। যেসব পরিস্থিতিতে প্যারোলে কাউকে মুক্তি দেওয়া হয়, সেগুলোর কোনোটাই তার জন্য প্রযোজ্য নয়। তাকে আইনি প্রক্রিয়াতেই মুক্তি পেতে হবে। তবে বিএনপির পক্ষ থেকে তার অসুস্থতার ব্যাপারে যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে এবং বারবার ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির দাবি করা হচ্ছে, তার জবাবে বলতে চাই- একজন দণ্ডিত আসামির জন্য জেলকোড অনুযায়ী যে চিকিৎসার সুযোগ রয়েছে, সেটার সর্বোচ্চটাই করছে কারা কর্তৃপক্ষ। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় ও হাসপাতাল দেশের সেরা হাসপাতাল। সেখানে তার চিকিৎসা চলছে। তারপরও বিএনপি নেতারা যদি তাদের চেয়ারপারসনের উন্নত চিকিৎসার স্বার্থে প্যারোলে মুক্তির আবেদন করেন এবং যদি তার চিকিৎসার্থে গঠিত মেডিক্যাল বোর্ড মুক্তির সুপারিশ করেন, সেক্ষেত্রে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তো বলেই দিয়েছেন সেটা বিবেচনাযোগ্য।’

যদিও বিএনপির পক্ষ থেকে প্যারোলে নয় বরং খালেদা জিয়ার পূর্ণাঙ্গ মুক্তি দাবি করা হচ্ছে। রবিবার (৭ এপ্রিল) দলটির একটি কর্মসূচিতে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আমরা বলেছি, নিঃশর্তভাবে দেশনেত্রীকে (খালেদা জিয়া) মুক্তি দিতে হবে। আমরা কোনও প্যারোলের কথা বলিনি। আমরা খুব পরিষ্কারভাবে বলছি, জামিন পাওয়া তার অধিকার। যে মিথ্যা মামলায় তাকে জোর করে সাজা দেওয়া হয়েছে, সেই মামলায় অন্য সবাই জামিনে রয়েছেন।’ ওই বক্তব্যে খালেদার মুক্তির জন্য আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে নেতাকর্মীদের আহ্বান জানিয়েছেন মির্জা ফখরুল।

 

Play
Play
previous arrow
next arrow
Slider

ফেসবুকে আমাদের সাথে থাকুন

তথ্য-প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা স্বাধীন সাংবাদিকতার পথে একটি বড় বাধা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছিল। এই ধারার কারণে বহু সাংবাদিককে হয়রানির শিকার হতে হয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে অনেক মামলা হয়েছে। অনেককে কারাগারেও যেতে...

    ১৭ই মার্চ, ১৯২০ সালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় শেখ লুৎফুর রহমান এবং সায়রা বেগমের ঘরে জন্ম নেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ছয় ভাইবোনের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়। গোপালগঞ্জ...

previous arrow
next arrow
ArrowArrow
Slider

সমাজ ও রাষ্ট্রে অশান্তির মূল কারণ হচ্ছে নৈতিক মূল্যবোধের অবক্ষয় …..ইঞ্জিনিয়ার চৌধুরী নেসারুল হক প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, বরাট জনকল্যাণ ফাউন্ডেশন, রাজবাড়ী।   জীবনের ক্ষুধা, তৃষ্ণা ছাড়াও, মানুষ এক কাল্পনিক জগতের চাহিদায়...

Archives

Jun0 Posts
Jul0 Posts
Aug0 Posts
Sep0 Posts
Oct0 Posts
Nov0 Posts
Dec0 Posts
Jan0 Posts
Feb0 Posts
Mar0 Posts
Apr0 Posts
May0 Posts
Jun0 Posts
Jul0 Posts
Aug0 Posts
Nov0 Posts
L0go

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি